এবার ত্রিদেশীয় সিরিজেও চলবে পেসারদের নিয়ে স্পেশাল পরীক্ষা-নিরিক্ষা

সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ দলের একাদশে ছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান ও শরিফুল ইসলাম। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে এবাদত হোসেন ও তাসকিন আহমেদকে সুযোগ দেয় বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্ট।

আরব আমিরাতকে হোয়াইটওয়াশের পর জানা গেল নিউজিল্যান্ডের মাটিতে আসন্ন ত্রিদেশীয়টি-টোয়েন্টি সিরিজেও পেসারদের নিয়ে পরীক্ষা-নিরিক্ষা চালাবে বাংলাদেশ।

প্রথম ম্যাচে দারুণ বোলিং করেছিলেন মুস্তাফিজ ও শরিফুল। অভিজ্ঞ পেসার মুস্তাফিজ নেন দুই উইকেট। শরিফুল নিয়েছিলেন তিনটি উইকেট। তাদের অসাধারণ বোলিংয়ে সেই ম্যাচটি সাত রানে জিতে নেয় বাংলাদেশ।

দ্বিতীয় ম্যাচে তাসকিন এবং এবাদত সেভাবে রঙ ছড়াতে না পারলেও খারাপ করেননি। তাসকিন ২২ রান ও এবাদত ২৪ রান খরচায় তুলে নেন একটি করে উইকেট। বাংলাদেশ ম্যাচটি জিতে ৩২ রানে।

ম্যাচ শেষে আসন্ন ত্রিদেশীয় সিরিজ নিয়ে পরিকল্পনার কথা জানান দলের টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট শ্রীধরন শ্রীরাম। তিনি বলেন, ‘তাসকিনকে বাদ দেওয়া হয়েছিল প্রথম ম্যাচে, এই কথা আমি বলব না। আমাদের পরিকল্পনা ছিল কে কোন ম্যাচে খেলবে তা নিয়ে। মোস্তাফিজ ও শরীফুল প্রথম ম্যাচে খেলবে এটা আগেই নির্ধারিত ছিল।’

‘আজ তাসকিন ও ইবাদত খেলেছে। আমাদের পেসারদের ঘুরিয়ে ফিরিয়ে খেলানোর পরিষ্কার পরিকল্পনা ছিল। সামনেও এমনই পরিকল্পনা থাকবে। বিশ্বকাপে কে হবে আমাদের পেসার, সেটা নির্ধারণের জন্যই আমাদের এই পরিকল্পনা।’

নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ত্রিদেশীয় সিরিজে বাড়তি চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশের পেসাররা, এমনটাও বিশ্বাস শ্রীরামের। অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপের আগে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এই সিরিজেই দলের পেস ইউনিট সাজাতে চান অভিজ্ঞ এই ভারতীয় কোচ।

শ্রীরাম আরও বলেন, ‘আমাদের ত্রিদেশীয় সিরিজ আছে নিউজিল্যান্ডে। সেখানে পাকিস্তান ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলব। পাকিস্তান এই মুহূর্তে অসাধারণ টি-টোয়েন্টি খেলছে। আর নিউজিল্যান্ড তো ঘরের মাঠে দারুণ দল। ছেলেদের জন্য সেটা ভিন্নরকমের চ্যালেঞ্জ হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *